হোম আন্তর্জাতিক চলন্ত বাসে গণধর্ষণের পর নির্যাতিতার যৌনাঙ্গে রড ঢুকিয়ে হত্যা

চলন্ত বাসে গণধর্ষণের পর নির্যাতিতার যৌনাঙ্গে রড ঢুকিয়ে হত্যা

অনলাইন ডেস্ক 06 Jan, 2021 5:49 PM

চলন্ত-বাসে-গণধর্ষণের-পর-নির্যাতিতার-যৌনাঙ্গে-রড-ঢুকিয়ে-হত্যা-2021-01-06-5ff5a3b3ec5b7.jpg

চলন্ত গাড়িতে মধ্যবয়সি এক মহিলাকে গণধর্ষণের পর নির্যাতিতার যৌনাঙ্গে রড ঢুকিয়ে দেয় নরপিশাচরা। শুধু রড ঢুকিয়েই থামেনি তারা,ভেঙে দেয় সেই মহিলার পাঁজের ও পায়ের হাড়। যার ফলে অতিরিক্ত রক্তপাতে বাসেই মৃত্যু হয় ওই মহিলার। আর মৃত্যুর পর মহিলার লাশ ফেলে দেয়া হয় চলন্ত বাস থেকে। 

রোববার (৩ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় উত্তরপ্রদেশের বদায়ুঁ জেলার উঘৈতি থানা এলাকায় এই নেক্ষার জনক ঘটনাটি ঘটেছে। এই ঘটনায় দু’জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। যদিও অভিযোগ আছে বিষয়টি নিয়ে পুলিশ গড়িমসি করেছে। 

জানা যায়,ঘটনার দিন ঐ মহিলা স্থানীয় মন্দিরে পুজো দিতে গিয়েছিলেন। তারপর আর বাড়ি ফেরেননি তিনি। মধ্যরাতে রাস্তার পাশ থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়া হলে ডাক্তার মৃত্যু বলে ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় পুলিশি নিস্ক্রিয়তার অভিযোগ তুলেছে নির্যাতিতার পরিবার। তাদের দাবি, অভিযোগ দায়ের করার পরও উঘৈতি থানার স্টেশন অফিসার (এসএইচও) রবেন্দ্রপ্রতাপ সিংহ ঘটনাস্থলে যাওয়ার প্রয়োজন অনুভব করেননি। বরং যেখান থেকে ওই মহিলাকে উদ্ধার করা হয়, সোমবার (৪ জানুয়ারি) দুপুরে একবার সেখানে যায় পুলিশ। এমনকি ময়নাতদন্ত নিয়েও গড়িমসির অভিযোগ উঠেছে। রোববার গভীর রাতে মৃত্যু হলেও, মরদেহ সোমবার বিকেলে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয় বলেও দাবি করেছেন নির্যাতিতার পরিবার।

মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারি) ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে আসে। জানা যায়, ধর্ষণের পর ওই মহিলার যৌনাঙ্গে রড ঢুকিয়ে দেয় ধর্ষকরা। সেই রক্তক্ষরণ আর বন্ধ করা যায়নি। এতে ওই মহিলার মৃত্যু হয়। এমনকি ভারী বস্তু দিয়ে নির্যাতিতার বুকেও আঘাত করা হয়। তাতে তার পাঁজরের হাড় ভেঙে যায়। নির্যাতিতার একটি পা ও ভেঙে দেওয়া হয়। 

পুলিশ জানিয়েছে, মহিলার অবস্থা দেখে প্রথমে চন্দৌসিতে তাকে চিকিৎসা করাতে নিয়ে যান অভিযুক্তরা। কিন্তু মারা গেছেন বুঝতে পেরে পরে ওই এলাকায় নির্যাতিতাকে গাড়ি থেকে ফেলে দেওয়া হয়।


আরও :

আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন

আরও সংবাদ