হোম আন্তর্জাতিক নিজের মেয়ের নগ্ন ভিডিও কিশোরদের পাঠিয়ে উত্তেজিত করার চেষ্টা করত মা

নিজের মেয়ের নগ্ন ভিডিও কিশোরদের পাঠিয়ে উত্তেজিত করার চেষ্টা করত মা

অনলাইন ডেস্ক 15 Jan, 2021 8:57 PM

নিজের-মেয়ের-নগ্ন-ভিডিও-কিশোরদের-পাঠিয়ে-উত্তেজিত-করার-চেষ্টা-করত-মা-2021-01-15-6001ad6eea2dd.jpg

নিজের মেয়ের নগ্ন ছবি  কিশোরদের পাঠাত নিজের মা। আর সেই ছবি দেখিয়ে উত্তেজিত করার চেষ্টা করত সেই সব কিশোরদের। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সব প্রকাশ হয়ে যাওয়ায় ৩৫ বছরের জেল হল আমেরিকার ফিলাদেলফিয়ার বাসিন্দা লিন্ডা পাওলিনি (৪৫) নামের অভিযুক্ত মায়ের।

অভিযোগ থেকে জানা যায়, নিজের মেয়ের ছবি পাঠিয়ে ওই সব কিশোরদের তিনি বোঝাতেন যে নগ্ন ছবির মেয়েটি আসলে তিনি নিজেই। কিশোরদের এমন ভাবে তিনি প্রলুব্ধ করতেন যে কিশোররাও প্রলুব্ধ হয়ে নিজেদের নগ্ন ছবি বা ভিডিও পাঠাত সেই মহিলার কাছে। যা দিয়ে তিনি শিশু পর্নোগ্রাফি তৈরিও করিয়ে নিয়েছিল যুবকের থেকে। তাঁর এই প্রতারণার বিষয়টি বুজতে পেরে যায় পুলিশের দারাস্ত হন এক যুবক । আর তাঁর পর বেড়িয়ে আসে এই সব তথ্য।

জানা যায়,নিজের মেয়ের অজান্তেই ভিডিও করে বিভিন্ন ছেলেদের কাছে সেই সমস্ত ভিডিও পাঠাত তাঁর মা। একই সাথে এই ছবি পাঠিয়ে ওই কিশোরের থেকে নগ্ন ছবি, ভিডিও চেয়ে পাঠাতে থাকে অভিযুক্ত মা।

তারপর অনলাইন ভিডিও চ্যাটের সময় মিথ্যা আত্মহত্যার ভয় দেখায়, পাল্টা ওই ছেলেটিও আত্মহত্যার চেষ্টা করে। আদালত জানিয়েছে, খুব ঠাণ্ডা মাথায জঘন্য এক অপরাধ করেছে ওই মহিলা। ওই কিশোরকে নিজের নগ্ন ছবি পাঠাতে বাধ্য করেছে।

হিসাব করে দেখা গিয়েছে, শেষ কয়েক মাসের মধ্যে ৫০ হাজার মেসেজ দেওয়া নেওয়া হয়েছে তাদের মধ্যে। পাওলিনি ইনস্টাগ্রামের মাধ্যমে এই নগ্ন ছবি পাঠাত বা চাইত।

পুলিশ জানিয়েছে, মানসিক ভাবে অসুস্থ লিন্ডা পাওলিনি। সেই কারণেই সে এরকম কাণ্ড ঘটিয়েছে। শুধু ওই কিশোর নয়, আরও দু’জনের সঙ্গে সে একই মেসেজ দেওয়া নেওয়া করত। পাওলিনির গতিবিধি তদন্ত করে দেখছে পুলিশ।


আরও :

আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন

আরও সংবাদ