হোম তথ্য ও প্রযুক্তি বিডি অ্যাপস হয়ে গেছে জাতীয় অ্যাপস্টোর

বিডি অ্যাপস হয়ে গেছে জাতীয় অ্যাপস্টোর

অনলাইন ডেস্ক 14 Mar, 2021 4:09 PM

বিডিঅ্যাপস-হয়ে-গেছে-জাতীয়-অ্যাপস্টোর-2021-03-14-604de0e394d8c.jpg

দেশের বৃহত্তম মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন প্ল্যাটফর্ম বিডিঅ্যাপস (http://www.bdapps.com) হয়ে গেছে জাতীয় অ্যাপস্টোর। ফলে এখন থেকে শুধু রবি নয়, যেকোনো মোবাইল ফোন অপারেটর অথবা অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের অ্যাপ ডেভেলপাররাও এই প্ল্যাটফর্মটিতে নিজেদের অ্যাপ জমা দিতে পারবেন। দেশীয় মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপাররা নিজেদের তৈরি অ্যাপ হোস্ট করে তা বিক্রি করে আয় করতে পারবেন। 

ইউজার ইন্টারফেস যেমন
বিডিঅ্যাপস প্ল্যাটফর্মটির ওয়েব সংস্করণটির ডিজাইন বেশ ছিমছাম। তবে আরেকটু সুন্দর ও সাজানো হলে বেশি ভালো হতো সাধারণ গ্রাহকদের জন্য। প্ল্যাটফর্মটির ওপরে থাকা মেন্যুতে ফ্রি অ্যাপ, টপ রেটিং, নতুন যুক্ত এবং সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত অ্যাপের তালিকা দেখা যাবে। অ্যাপ ক্যাটাগরি অপশন থেকে দেখা যাবে বিজনেস, শিক্ষা, ফান, স্বাস্থ্য ইত্যাদিসহ মোট ১২টি ক্যাটাগরি বা বিভাগ। প্ল্যাটফর্মটির ওপরে রয়েছে সার্চ বাটন।

সহজে তৈরি করা যাবে অ্যাপ
বিডিঅ্যাপস প্ল্যাটফর্মে কোনো কোডিং ধারণা ছাড়াই তৈরি করা যাবে অ্যাপ। তবে সেটি খুবই বেসিক লেভেলের এসএমএসভিত্তিক অ্যাপ্লিকেশন হবে। এগুলো দিয়ে দৈনিক বার্তা প্রেরণ, ব্যবসায়ের উন্নয়ন সম্পর্কে গ্রাহকদের আপডেট করা বা পোল পরিচালনা করা যেতে পারে। বিডিঅ্যাপস প্ল্যাটফর্মে বেশ কিছু টেম্পলেট রয়েছে এই ধরনের অ্যাপ তৈরির জন্য।

যেভাবে অ্যাপ তৈরি করবেন
অ্যাপ তৈরি করার জন্য প্রথমে নিবন্ধন করতে হবে বিডিঅ্যাপস প্ল্যাটফর্মে। তারপর ব্যবহারকারীর নাম ও পাসওয়ার্ড দিয়ে ড্যাশবোর্ডে লগইন করতে হবে। লগইন করার পরে হোম পেজ থেকে ‘bdappslite’ অপশনে গিয়ে ‘create application’-এ ক্লিক করতে হবে। তারপর কোন ধরনের অ্যাপ বানাতে চান তা নির্ধারণ করা চাই। অ্যালার্ট, সার্ভিস, কন্টাক্ট, ভোটিং—এই চারটি অপশন পাওয়া যাবে। সেখান থেকে ধরন নির্ধারণ করতে হবে।

পরবর্তী ধাপে নতুন একটি পেজ চালু হবে। সেখানে প্রথমে অ্যাপের নাম দিয়ে সেটি কত দিন অ্যাক্টিভ বা কার্যকর থাকবে তা নির্ধারণ করতে হবে। এরপর ব্যবহারকারীর প্রয়োজন অনুযায়ী তথ্যগুলো পূরণ করে নেক্সট বাটন চাপতে হবে। তারপর অ্যাপের বিস্তারিত তথ্য দেখাবে। সব ঠিক থাকলে কনফার্ম বাটনে ক্লিক করতে হবে। এরপর অ্যাপটি রিভিউয়ের জন্য চলে যায় বিডিঅ্যাপস কর্তৃপক্ষের কাছে। এরপর অ্যাপটি যাচাই-বাছাই করার পর প্রকাশ করা হয়।

দেখা যাবে রিপোর্ট
ডেভেলপাররা যেকোনো অ্যাপ আপলোড করার পর অ্যাপের রিপোর্ট বিস্তারিত দেখতে পারেন, যে জন্য বিডিঅ্যাপস প্ল্যাটফর্মে রয়েছে দারুণ সুবিধা। হোম পেজে থাকা ‘reporting’ অপশন থেকে অ্যাপের  প্রতিদিন, মাসিক এবং বার্ষিক ট্রাফিক সম্পর্কে তথ্য জানা যাবে। প্রতিটি অ্যাপ কতজন ব্যবহার করেছেন এবং সেখান থেকে ডেভেলপারদের আয় কেমন হয়েছে সে তথ্যও জানা যাবে। এ ছাড়া Direct Subscription Summary Report অপশন থেকে নির্দিষ্ট সময় অনুযায়ী ডেভেলপাররা রিপোর্ট দেখতে পারবেন।

যেভাবে ব্যবহার করতে হবে
বিডিঅ্যাপস প্ল্যাটফর্ম অনেকটা গুগলপ্লে বা অ্যাপলের অ্যাপস্টোরের মতোই। এটি একটি মার্কেটপ্লেস সেখানে অনেক অ্যাপ রয়েছে। ব্যবহারকারীরা সেগুলো ডাউনলোড করে ব্যবহার করতে পারবেন। তেমনি অনেক ডেভেলপার তাঁদের অ্যাপ আপলোড করতে পারবেন এতে। বিডিঅ্যাপস শুধু অ্যানড্রয়েড ব্যবহারকারীরা ব্যবহার করতে পারবেন। এ জন্য এই ঠিকানা (https://cutt.ly/RzYLpyQ) থেকে বিডিঅ্যাপসটি ডাউনলোড করে নিতে হবে। এ ছাড়া এই ঠিকানা (https://bdapps.com) থেকেও অ্যাপগুলো দেখে নেওয়া যাবে।

অ্যাপটি নিয়ে রবির পরিকল্পনা
অ্যাপ ডেভেলপমেন্টকে উৎসাহিত করতে বিডিঅ্যাপস প্ল্যাটফর্মটি তৈরি করা হয়েছে। ডিজিটালভাবে এগিয়ে যাওয়া এই সময়ের সঙ্গে যেন দেশের তরুণরা এই খাতে অবদান রাখতে পারেন সেই লক্ষ্যে বিডিঅ্যাপস প্ল্যাটফর্মটি তৈরি করা হয়েছে। সামনে আরো নতুন ফিচার যুক্ত করা হবে এতে। রবির ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং প্রধান নির্বাহী মাহতাব উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘বিডি অ্যাপস ডেভেলপারদের প্রাথমিক বিপণনের জন্য অর্থ জোগান দিতে একটি তহবিল চালু করছে রবি। এই প্ল্যাটফর্মটির মাধ্যমে অনেক নতুন ডেভেলপার তৈরি হবে।’

জাতীয় অ্যাপস্টোর হিসেবে ঘোষণা
মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন প্ল্যাটফর্ম বিডিঅ্যাপসকে (http://www.bdapps.com) জাতীয় অ্যাপস্টোর হিসেবে ঘোষণা দেন তথ্য-প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহেমদ পলক। সম্প্রতি তথ্য-প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগ ও রবির মধ্যে এক চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে এ ঘোষণা দেওয়া হয়।

উদ্ভাবনী মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে তথ্য-প্রযুক্তি খাতে উদ্যোক্তা তৈরিতে সহায়তা করতে সরকারের আইসিটি বিভাগের সঙ্গে কাজ করবে মোবাইল অপারেটর রবি আজিয়াটা লিমিটেড। মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন প্ল্যাটফর্ম বিডিঅ্যাপসের মাধ্যমে ডিজিটাল শিক্ষা ও উদ্যোক্তা তৈরির এই কাজটি হবে। বিডিঅ্যাপসে স্থানীয় মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপাররা তাঁদের তৈরি অ্যাপ হোস্ট করে তা বিক্রি করে আয় করতে পারবেন।

পাঁচ বছরের জন্য আইসিটি বিভাগ ও রবি নিজেদের মধ্যে সমঝোতা চুক্তিও করেছে। প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহেমদ বলেন, ‘এই চুক্তির মাধ্যমে ডেভেলপাররা আইসিটি বিভাগের বর্তমান প্রশিক্ষণ সুবিধা পাবেন এবং বিডিঅ্যাপসের মাধ্যমে তাঁদের দক্ষতা গ্রাহকদের কাছে পৌঁছানোর মাধ্যমে আর্থিকভাবেও লাভবান হবেন।’


আরও :

আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন

আরও সংবাদ