হোম বাংলার সংবাদ নন্দীগ্রামের কৃতি সন্তান ড. মুশফিক দুদকের ডিজি হলেন

নন্দীগ্রামের কৃতি সন্তান ড. মুশফিক দুদকের ডিজি হলেন

জাকারিয়া লিটন নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ 12 Oct, 2021 3:34 PM

নন্দীগ্রামের-কৃতি-সন্তান-ড.-মুশফিক-দুদকের-ডিজি-হলেন-2021-10-12-616556b98ec2b.jpg

বগুড়া জেলার নন্দীগ্রাম উপজেলার গোছন গ্রামের কৃতি সন্তান ড.মোঃ মুশফিকুর রহমান দুর্নীতি দমন কমশনের মহাপরিচালক (ডিজি) নিযুক্ত হয়েছেন।গতকাল ১১ই অক্টোবর জনপ্রশাশন মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপন জারি করে।এর আগে তিনি ২০২১ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি ইসলামিক ফাউন্ডেশনে মহাপরিচালক হিসেবে যোগদান করেন। মহাপরিচালক হিসেবে যোগদানের পূর্বে তিনি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অতিরিক্ত সচিব হিসেবে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে কর্মরত ছিলেন।

ড. মোঃ মুশফিকুর রহমান ১৯৯৪ সালের ২৫ এপ্রিল বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (প্রশাসন) ক্যাডারের ১৩শ ব্যাচের একজন কর্মকর্তা হিসেবে চাকরিতে যোগদান করেন। তাঁর দীর্ঘ ২৭ বছরের চাকরিজীবনে তিনি মাঠ প্রশাসনের পাশাপাশি মন্ত্রণালয় পর্যায়েও বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। মাঠ পর্যায়ে তিনি ঝিনাইদহ, চুয়াডাঙ্গা এবং যশোহর জেলায় সহকারী কমিশনার হিসেবে এবং দেশের তিনটি উপজেলায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া তিনি সিনিয়র সহকারী সচিব হিসাবে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগে এবং উপসচিব হিসেবে সাংস্কৃতিক বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে কাজ করেছেন।

ড. মোঃ মুশফিকুর রহমান ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ থেকে ১২ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত নেত্রকোনা জেলার জেলা প্রশাসক হিসেবে সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করেন। জেলা প্রশাসক হিসাবে তিনি নিজেকে বিভিন্ন ধরনের উদ্ভাবনী ও পরিষেবামুখী কর্মকাণ্ডেও নিযুক্ত করেছিলেন। তিনি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, শিক্ষা ও উন্নয়নমূলক কার্যক্রম, দুর্যোগ মোকাবেলা কার্যক্রম এবং সামাজিক সুরক্ষা কর্মসূচিসহ সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়নে সফলভাবে দায়িত্ব পালন করেন। তাছাড়া, তিনি জেলা পর্যায়ে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাসহ সরকারী ও বেসরকারী সংস্থার মধ্যে সমন্বয় কাজে তার সক্ষমতা দেখিয়েছেন।

ড. মোঃ মুশফিকুর রহমান বগুড়া জেলার অন্তর্গত নন্দিগ্রাম উপজেলার গোছন গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।তিনি গোছন গ্রামের বিশিষ্ট ব্যক্তি মরহুম ডাঃ চয়েন উদ্দীনের সন্তান। নন্দিগ্রাম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক এবং সরকারি আজিজুল হক কলেজ বগুড়া থেকে তিনি উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। অতঃপর তিনি বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ময়মনসিংহ থেকে ডক্টর অব ভেটেরিনারি মেডিসিন (ডিভিএম) ডিগ্রি এবং একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাইক্রোবায়োলজিতে এমএসসি ডিগ্রি অর্জন করেন। এছাড়া তিনি ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গভর্নেন্স অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টে এমএ ডিগ্রি অর্জন করেন। সকল একাডেমিক পরীক্ষায় তিনি প্রথম শ্রেণি/বিভাগ অর্জন করেন। পরবর্তিতে তিনি ২০১৪ সালে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্যাথলজিতে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন।

ড. মোঃ মুশফিকুর রহমানের আন্তর্জাতিক জার্নালে ০৭টি প্রকাশনাসহ সর্বমোট ১৬টি প্রকাশনা রয়েছে। তিনি স্কাউট কার্যক্রমে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ বাংলাদেশ স্কাউটস থেকে ‘মেডেল অব মেরিট’ পদক অর্জন করেন এবং তিনি তাঁর অধ্যয়নকালে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সংস্থার কাছ থেকে বিভিন্ন মেয়াদে বৃত্তি লাভ করেন। তিনি জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে উন্নয়ন এবং প্রশাসন বিষয়ক বিভিন্ন সভা/সেমিনারে অংশগ্রহণ করেছেন।

ড. মোঃ মুশফিকুর রহমান তার চাকুরী জীবনে দেশ বিদেশ থেকে অনেক পেশাগত প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছেন। এছাড়া তিনি পেশাগত কাজে বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশ যেমন যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, যুক্তরাজ্য, সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, জাপান, সুইডেন, ফিনল্যান্ড, স্পেন, চীন, রাশিয়া, ভারত, থাইল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া এবং দক্ষিণ কোরিয়া ভ্রমণ করেছেন । ব্যক্তি জীবনে তিনি বিবাহিত এবং এক পুত্র সন্তানের জনক।


আরও :

আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন

আরও সংবাদ