হোম বাংলার সংবাদ বগুড়ার শেরপুরে মহাসড়ক থেকে অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার হল ৩ যাত্রী।

বগুড়ার শেরপুরে মহাসড়ক থেকে অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার হল ৩ যাত্রী।

ইফতেখার আলম( বগুড়া) শেরপুর প্রতিনিধি 12 May, 2021 11:14 AM

বগুড়ার-শেরপুরে-অজ্ঞান-অবস্থায়-উদ্ধার-হল-৩-জন।-2021-05-12-609b642a50ef9.jpg

পবিত্র ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে তৎপর হয়ে উঠেছে অজ্ঞান পার্টি চক্র। চেতনানাশক ওষুধ খাইয়ে যাত্রীর নিকট থেকে হাতিয়ে নিল লক্ষাধিক টাকা।

গত ১১ মে ২০২১ ঢাকার চান্দুরা থেকে নওগাঁ গামী বাস না পেয়ে নওগাঁর ট্রাকে করে ফিরছিলেন মোঃ আব্দুল জলিল (৩৫)পিতা মোঃ শরিফ উদ্দিন গ্রাম ভদ্র সেনা, নওগাঁ মোহাম্মদ কল্যাণ মিয়া (৪০) পিতা অজ্ঞাত সহ আরো একজন অজ্ঞাত তিনজনেই নওগাঁর ট্রাকে করে বাড়ি ফিরছিলেন ।

পথিমধ্যে তাদেরকে চেতনানাশক ঔষধ খাইয়ে তাদের নিকট থেকে আনুমানিক লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক চক্র। তারমধ্যে আব্দুল জলিল তার নিকট থেকে ৪৭০০০/-হাজার টাকা এবং মোহাম্মদ কল্যাণ মিয়ার কাছ থেকে ৬০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে ।আরো একজন সে জ্ঞান হীন অবস্থায় রয়েছে।

তাদেরকে চেতনা নাশক ঔষধ খাইয়ে টাকা হাতিয়ে নিয়ে গত ১১মে রাত্রি আনুমানিক বারোটার দিকে বগুড়া শেরপুর মির্জাপুরের রাজাপুর নামক স্থানে ফেলে প্রতারক চক্র পালিয়ে যায়।

সেখান থেকে বিডি নিউজ 20 পত্রিকার সিইও মোঃ বাবুল হোসেন তাদেরকে উদ্ধার করে শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

তিনজনের মধ্যে আব্দুল জলিল ও কল্যাণ মিয়া জ্ঞান ফিরেছে তারা কথা বলতে পারছে অন্য একজন এখনো অজ্ঞান অবস্থায় রয়েছে তার পরিচয় এখনো জানা যায়নি।

তাদের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে জানতে চাইলে শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দায়িত্বপ্রাপ্ত ডাক্তার মোঃ বিপ্লব পরামানিক বলেন, তাদেরকে উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন চেতনানাশক ঔষধ খাইয়ে দেওয়া হয়েছে ২৪ ঘন্টা পূর্বে জ্ঞানফেরা সম্ভব নয়। তবে তারা আশঙ্কামুক্ত। তিনজনের মধ্যে আব্দুল জলিল তার পরিবারের লোকজন অবহিত হয়েছে বাকি দুই জনের আত্মীয়-স্বজন এখনো জানেনা তারা কোথায় কি অবস্থায় রয়েছে।

এ ব্যাপারে শেরপুর থানা পুলিশ বিষয়টি তদারকি করছে। জ্ঞান না ফেরা পর্যন্ত তাদের ব্যাপারে কোন সিদ্ধান্ত নিতে পারছে না বলে জানান।

 


আরও :

আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন

আরও সংবাদ