হোম বাংলার সংবাদ মেরা ফেলার হুমকি জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সংবাদ সম্মেলন

মেরা ফেলার হুমকি জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সংবাদ সম্মেলন

সেলিম খান জেলা প্রতিনিধি : 06 May, 2021 10:11 AM

মেরা-ফেলার-হুমকি-জীবনের-নিরাপত্তা-চেয়ে-সংবাদ-সম্মেলন-2021-05-06-60936c8c08e90.jpg

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন কলারোয়া পৌর সদরের তুলশীডাঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা গোলাম রসুল। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কলারোয়া রিপোর্টার্স ক্লাবে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে গোলাম রসুল বলেন, আমার মা সুফিয়া খাতুনের হত্যাকরি একই গ্রামের রাসেল, আমিরুল, সিরাজ,সহিদ,আলি, তোতা। আর এই হত্যার বাদি আমি এ জন্য তারা আমাকে হত্যা করার জন্য নানা রকম পরিকল্পনা শুরু করেছে। এরা সবাই এখন জামিনে আছে। আমার কোন অপরাধ না পেয়ে আমার দশ বছরের ছেলে জুয়েলকে মসজিদের দান বাক্সের তালা ভেঙ্গে টাকা চুরির অপবাদ দিয়ে আমাকে ও আমার ছেলেকে হত্যার উদ্দেশ্যে বেধড়ক মারধর করেছে। আমি কলারোয়া হাসপাতালে ভর্তি ছিলাম।

তিনি আরো বলেন, মসজিদ কমিটির ক্যাশিয়ার ওজিয়ার মাস্টারের কাছে দান বাক্সের চাবি থাকে। আমাকে সমাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য এবং আমার মামা মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আহাদকে পদ থেকে সরানোর জন্য এই চুরির অপবাদ দিয়েছে আমার ছেলের নামে। মূলত মসজিদের টাকা চুরি করেছে তোতা মিয়া।

মসজিদের ক্যাশিয়ার এদের সাথে জোট বেধে রাসেল, শহিদ,কবিরুল,শফিকুল, সিরাজকে ডেকে এই পরিকল্পনা করে। গত রবিবার আছরের পর মসজিদের ক্যাশিয়ার ওজিয়ার মাষ্টারের বাড়ির সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় তারা আমাকে চোর ও চোরের পিতা বলে বেধড়ক মারধর শুরু করে। আমাকে মারধরের খবর পেয়ে আমার মামা আব্দুল আহাদসহ ভাইয়েরা আব্দুস সামাদ, বাবু,মোহাম্মদ,সাইফুল,শরিফুলসহ অন্যান্য ভাইয়েরা বাচাতে আসলে তারা আমার পরিবারের সদস্যদেরকে মেরা ফেলার হুমকি দেয়। এবং বলতে থাকে তোর মায়ের মত তোরও ওপারে পাঠাই দেবো। এ সময় গ্রাম বাসীরাও ছুটে আসে তাদের মধ্যে ওজিয়ার মাষ্টার, তোতা, রাসেল, শহিদ, কবিরুল, শফিকুল উপস্থিত থেকে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করে। আমাকে বাচাতে গিয়ে আহত হন আব্দুল আহাদ,আব্দুস সামাদ,সাইফুল,রতন,মানিক,রনি। আমার মায়ের হত্যার বাদি হওয়ার কারণে হত্যাকরীরা আমাকেও হত্যার হুমকি দিচ্ছে ইতোমধ্যে আমাকে বেধড়ক মারধরও করেছে। তারা সকলে এখন জামিনে আছে। আমিও আমার পরিবার জীবনের নিরাপত্তাহিনতায় ভূগছি। আমি সাংবাদিক ভাইদের মাধ্যমে আমি ও আমার পরিবারের জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার ও কলারোয়া থানার ওসি'র মহোদয়ের সহযোগীতা কামনা করছি।


আরও :

আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন

আরও সংবাদ