হোম বাংলার সংবাদ সলঙ্গার রামকৃষ্ণপুরে ডিজিটাল কায়দায় বয়স্ক ভাতার টাকা চুরি

সলঙ্গার রামকৃষ্ণপুরে ডিজিটাল কায়দায় বয়স্ক ভাতার টাকা চুরি

মোঃ জুয়েল হোসেন || জেলা প্রতিনিধি || সিরাজগঞ্জ 13 Jun, 2021 4:04 PM

সলঙ্গার-রামকৃষ্ণপুরে-ডিজিটাল-কায়দায়-বয়স্ক-ভাতার-টাকা-চুরি-2021-06-13-60c5ca31ce576.jpg

সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার রামকৃষ্ণপুরে ডিজিটাল কায়দায় বয়স্ক ভাতার টাকা চুরির অভিযোগ উঠেছে মোস্তাক নামে এক হুজুরের বিরুদ্ধে। জানাজানি হওয়ার পর টাকা চুরির কথা স্বীকার করে ১০হাজার টাকা দিয়ে ক্ষমাও চেয়েছেন তিনি।

শনিবার  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম হিরো।

জানাগেছে,দীর্ঘদিন হলো রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের রহিমাবাদ গ্রামের বয়স্ক ভাতাভোগী আব্দুল ওয়াহেদের নামের টাকা একই গ্রামের আব্দুল গফুরের ছেলে মোস্তাক হুজুর ভুক্তভোগীর অজান্তে ব্যাংক এশিয়ার মাধ্যমে টাকা উত্তোলন করেন।

ভুক্তভোগী আব্দুল ওয়াহেদ জানান,রামকৃষ্ণপুরর ইউনিয়ন পরিষদের তথ্যসেবার মাসুদের কাছে টাকা বিষয়ে বলতে গেলে সে কোন গুরুত্ব দেয়না। সবাই বলে অ্যাকাউন্ট ঠিক আছে তাহলে কেন টাকা পান না। অনেক চেষ্টার পর বিষয়টি জানতে পারি মোস্তাক আমার টাকা তুলে নেন। পরে দবিরগঞ্জে চেয়ারম্যানের মার্কেটে বসে বিষয়টি সমাধান করেছেন। 

স্থানীয়দের অভিযোগ, পরিষদের উদ্যোক্তা মাসুদের উদাসিনতার কারনে একইভাবে আরো অনেক ভাতাভোগী এরকম পরিস্থিতির শিকার হচ্ছেন। 

এ বিষয়ে অভিযুক্ত মোস্তাক বলেন,আমার ভুল হয়েছে। চেয়ারম্যান ১০ হাজার টাকা রায় করেছে আমি সেটা মেনে নিয়েছি।

রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোক্তা মাসুদ বিন রশিদ বলেন,ভুলে ওয়াহেদ আলীর এনআইডি কার্ড দিয়ে মোস্তাকের অ্যাকাউন্ট হয়েছিল। পরে সে সলঙ্গা এজেন্ট ব্যাংক থেকে টাকা তুলে নেন। বিষয়টি নিয়ে বসে সমাধান করা হয়েছে। 

রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম হিরো বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, অ্যাকাউন্টে ভুল থাকার কারনে এক জনের টাকা অন্য জন তুলে নিয়েছিল। পরে বিষয়টি সমাধান করা হয়েছে।


আরও :

আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন

আরও সংবাদ